পারভেজ,বরিশাল প্রতিনিধিঃ

ঢাকা-বরিশাল নৌপথের মেঘনা নদীতে এমভি মানামী লঞ্চের সাথে এমভি সুন্দরবন-১০ লঞ্চের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি। বুধবার রাত সোয়া ২ টার দিকে মেঘনা নদীর ইলিশা চ্যানেলে এ ঘটনা ঘটে। লঞ্চের যাত্রীরা জানায়, মিয়ারচর চ্যানেলের বিকল্প মেঘনা নদীর ইলিশা চ্যানেলে এমভি মানামী ও সুন্দরবন-১০ লঞ্চের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে।

সূত্র মতে জানা গেছে, ঢাকার সদরঘাট থেকে বুধবার সন্ধ্যায় এমভি মানামী ও সুন্দরবন-১০ লঞ্চ দুটি বরিশালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে।

তবে অল্পের জন্য প্রানে রক্ষা পায় লঞ্চে থাকা প্রায় ২ হাজার যাত্রী। মানামী লঞ্চের মাষ্টার আসাদুজ্জামান এ ঘটনার জন্য নিজেকে নির্দোশ দাবী করে বলেন, ভিএইচএফ এ পেছনে যাবার খবরটি সুন্দরবন-১০ লঞ্চকে অবহিত করা হয়েছিলো। কিন্তু ঐ লঞ্চ তার দেয়া তথ্যানুসারে গুরুত্ব না দেয়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। দূর্ঘটনার পর লঞ্চদুটি চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে বরিশাল নিয়ে আসা হয়। যাত্রীদের নিরাপদে নামিয়ে দেয়া হয়েছে। বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আজমল হুদা মিঠু সরকার জানান, লঞ্চ দুটি পরিদর্শন করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ লঞ্চ দুটি মেরামত করে যাত্রার জন্য উপযোগী করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বরিশাল নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড চিফ সার্ভেয়ার আবু হেলাল সিদ্দিকী জানান, ছাড়পত্র না পাওয়া পর্যন্ত লঞ্চ দুটির যাত্রা স্থগিত করা হয়েছে। দুটি লঞ্চই বুধবার সন্ধ্যায় বরিশালের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছিলো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে