নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজে স্থাপিত পলিমার চেইন রি-অ্যাকশন (পিসিআর) ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরে দোয়া মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ল্যাবের উদ্বোধন করেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। কিন্তু প্রথম দিনে কোন সন্দেহভাজন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। যদিও টেকনোলজিস্টদের প্রশিক্ষন দেয়া হচ্ছে পিসিআর ল্যাবে।

পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, করোনাভাইরাস পরীক্ষা নিয়ে এতদিন অনিশ্চয়তায় ভুগছিলেন দক্ষিনাঞ্চলের মানুষ। এই ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হওয়ার মধ্য দিয়ে সেই অনিশ্চয়তা কেটে গেছে। তিনি জানান, প্রতিদিন এখানে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। ধীরে ধীরে এই সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে। নমুনা পরীক্ষা ও টেকনোলজিস্টদের প্রশিক্ষন একই সাথে চলবে।

ল্যাব পরিচালনায় জনবল সংকটের ব্যাপারে প্রতিমন্ত্রী বলেন, পটুয়াখালীতে কর্মরত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক শহিদুল ইসলামকে বরিশাল মেডিকেলে বদলি করা হয়েছে। ২/১ দিনের মধ্যে তিনি নতুন কর্মস্থলে যোগ দেবেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. অসীত ভূষন দাস জানান, ৩০ মার্চ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে পিসিআর মেশিন বরিশালে সরবরাহ করা হয়। কলেজের মাইক্রোবায়োলজী বিভাগে পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের দু’জন ক্লিনিক্যাল প্যাথলোজিস্ট ও ছয়জন টেকনোলজিস্টকে প্রশিক্ষন দিচ্ছে পিসিআর মেশিন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ওভারেজ মার্কেটিং কর্পোরেশন।

তিনি আরও জানান, মেডিকেলের করোনা ইউনিট, জেলা হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা যাদের নির্ধারণ করে দেবেন শুধুমাত্র তাদেরই নমুনা পরীক্ষা হবে এই ল্যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে